বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।



ঢাকা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-৪ এর গ্রাহকবৃন্দ, পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের কর্মকর্তাবৃন্দ, উপদেষ্টা প্রতিষ্ঠান ও সমিতির কর্মকর্তা/কর্মচারীবৃন্দ, আমন্ত্রিত অতিথি, সাংবাদিকবৃন্দ ও সুধীমন্ডলী আস্সালামু-আলাইকুম।

দেশের খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি, গ্রামীণ শিল্পায়ন, জনস্বাস্থ্য সচেতন বৃদ্ধি, বেকার সমস্যা হ্রাসকরণ অর্থাৎ গ্রামীণ আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সমগ্র বাংলাদেশে পল্লী বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমের উদ্দেশ্য ও প্রত্যয়ের দৃষ্টান্ত হিসেবে ঢাকা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-৪ ঢাকা জেলার কেরানীগঞ্জ উপজেলা, মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান উপজেলার আংশিক ও মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার আংশিক ভৌগোলিক এলাকায় বিদ্যুৎ বিতরণ কাজে নিয়োজিত। সুষ্ঠুভাবে বিতরণ লাইন রক্ষণাবেক্ষণের জন্য সমিতির ভৌগোলিক এলাকায় সদর দপ্তর ছাড়াও ০৩টি জোনাল অফিস, ০২ টি এরিয়া অফিস এবং ০৭টি অভিযোগ কেন্দ্রের মাধ্যমে বিতরণ লাইন পরিচালন, রক্ষণাবেক্ষণ ও গ্রাহকগণকে অনবরত সেবা প্রদান অব্যাহত রয়েছে।


সমিতি আর্থিকভাবে এখনও স্বাবলম্বী হতে পারেনি। বিদ্যুৎ লাইন রক্ষণাবেক্ষণ, পরিচালন এবং পিডিবি হতে বিদ্যুৎ ক্রয় সহ অন্যান্য যাবতীয় খরচ আপনাদের নিকট হতে আদায়কৃত বিদ্যুৎ বিলের অর্থের মাধ্যমে মিটানো হয়। তাই নিয়মিত বিদুৎ বিল পরিশোধ করতে সম্মানিত গ্রাহকদেরকে অনুরোধ জানাচ্ছি।


বিদ্যুৎ উৎপাদন থেকে বিদ্যুৎ সাশ্রয় সহজতর এবং এতে কোন আর্থিক সংশ্লেষ নাই। উপরোন্ত কম বিল পরিশোধ করা যায়। সে লক্ষ্যে সাশ্রয়ী বিদ্যুৎ বাল্ব সিএফএল, টিউব লাইটের ম্যাগনেটিক ব্যালেষ্টের পরিবর্তে সাশ্রয়ী ইলেকট্রনিক ব্যালেষ্ট এবং সাশ্রয়ী বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি ব্যবহার করার জন্য সম্মানিত গ্রাহকদেরকে অনুরোধ জানাচ্ছি।


বর্তমানে বিদ্যুৎ পরিস্থিতির অনেক উন্নতি হয়েছে। আরও উন্নতির করার অত্র এলাকায় ৫০ মেঃওঃ ০১ টি পাওয়ার প্লান্ট স্থাপিত হয়েছে এতে বিদ্যুৎ লোড শেডিং সমস্যার সমাধান হয়েছে।


এছাড়াও বিদ্যুৎ ঘাটতি মোকাবেলা করার জন্য আপনার বাড়ী/স্থাপনায় সোলার হোম সিষ্টেম (সৌর বিদ্যুৎ) স্থাপনের অনুরোধ জানাচ্ছি। এতে একদিকে যেমন রাষ্ট্রেয় মূল্যবান খনিজ সম্পদ সাশ্রয় হবে অন্যদিকে পরিবেশ বান্ধব প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি আপনার মূল্যবান অবদান রাখতে পারেন।


সম্মানিত গ্রাহক সদস্যবৃন্দ,
আপনারাই অত্র পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির মালিক। ট্রান্সফরমারসহ বৈদ্যুতিক সাজ-সরঞ্জাম চুরি হলে সমিতি এবং আপনাদের উভয়ের আর্থিক ক্ষতি হবে। কাজেই সমিতির সকল প্রকার সম্পদের হেফাজত করাও আপনাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য। অতএব, লোড শেডিং এবং বিদ্যুৎ বিভ্রাট জনিত কারণে যদি বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকে, তবে আশা করি, আপনারা বিষয়টি বাস্তব অবস্থা উপলব্ধি পূর্বক সমিতি ব্যবস্থাপনাকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করবেন।


‘‘উত্তম গ্রাহক সেবাই সমিতির মূল লক্ষ্য’’।

আল্লাহ্ হাফেজ

(মোঃ মাহবুব রহমান)
সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার